বাংলাদেশ চা বোর্ড গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

খবর

ক্রমিক শিরোনাম প্রকাশের তারিখ
২১ বাংলাদেশ চা বোর্ডের প্রকল্প উন্নয়ন ইউনিট (পিডিইউ)-এর ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ড. এ কে এম রফিকুল হক কর্তৃক আজ ১০.১২.২০২০ তারিখে শ্রীমঙ্গল উপজেলাস্থ রাজঘাট চা বাগানের শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষাবৃত্তির চেক হস্তান্তর করা হয়। দেশের চা বাগানের শ্রমিক পোষ্যদের চা শ্রমিক শিক্ষা ট্রাস্ট থেকে এ বছর প্রায় সাড়ে দশ লাখ টাকার ‘শিক্ষা বৃত্তি ২০২০’ প্রদান করা হয়েছে। শিক্ষা গ্রহণে উৎসাহ প্রদান ও শিক্ষার মানোন্নয়নে ২০১৯ খ্রিস্টাব্দের বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে বাগানের ২য় থেকে ৮ম শ্রেণি পর্যন্ত ১৮০৩ জন মেধাবী শ্রমিক পোষ্যদের এ বছর বৃত্তি দেয়া হয়েছে। ২০২০-১২-১০
২২ ক্ষুদ্রায়তন চা চাষ প্রকল্প বাস্তবায়নের মাধ্যমে পার্বত্য চট্টগ্রাম জেলা সমূহে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর দারিদ্র দূরীকরণ এবং নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো: জহিরুল ইসলাম, এনডিসি, পিএসসি ২০.১১.২০২০খ্রি. তারিখে খাগড়াছড়ি সার্কিট হাউজে ঐ অঞ্চলের ক্ষুদ্র চা চাষি বৃন্দের সাথে এক আলোচনা ও মতবিনিময় সভায় মিলিত হন। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে ক্ষুদ্রায়তন চা চাষ সম্প্রসারণে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেন এবং সেই সাথে সকলের অংশগ্রহণ কামনা করেন। উক্ত সভায় জি-২ ইনটেলিজেন্সের মেজর সালাউদ্দিন, বিটিআরআই ফটিকছড়ি উপকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: মশিউর রহমান আকন্দ, উর্দ্ধতন খামার সহকারী অজিত চন্দ্র চৌধুরী এবং বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিক বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। ২০২০-১১-২০
২৩ দেশের পার্বত্য চট্টগ্রাম অঞ্চলে ক্ষুদ্র পর্যায়ে চা চাষ সম্প্রসারণের নিমিত্ত বাংলাদেশ চা বোর্ড কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন “এক্সটেনশন অব স্মল হোল্ডিং টি কালটিভেশন ইন চট্টগ্রাম হিল ট্র্যাক্টস” প্রকল্পের আওতায় চা চাষীদের দোরগোড়ায় চা সংক্রান্ত সেবা পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে বান্দরবান সদর উপজেলার হ্লাপাইমুখ পাড়ায় গত ০৪ নভেম্বর ২০২০ খ্রিস্টাব্দ তারিখ ক্ষুদ্র চা চাষীদের জন্য ‘খোলা আকাশ স্কুল’ মডেলে “চা পাতা চয়ন, চা গাছ ছাঁটাই, পোকামাকড় ও রোগবালাই দমন এবং বিভিন্ন আন্তঃপরিচর্যা” বিষয়ক হাতে কলমে প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়। উক্ত কর্মশালায় রিসোর্স পার্সন হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন প্রকল্প পরিচালক জনাব সুমন সিকদার এবং প্রকল্পের রুমা কার্যালয়ের বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা জনাব মোঃ ইমরান হোসেন। বক্তারা বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে সহজ উপায়ে চা আবাদ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনার পাশাপাশি অংশগ্রহণকারী ২৫ জন চাষীকে হাতেকলমে পাতা চয়ন পদ্ধতি, চা গাছ ছাঁটাই, পোকামাকড় ও রোগবালাই দমন এবং বিভিন্ন আন্তঃপরিচর্যা বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন। কর্মশালায় অর্জিত জ্ঞানকে কাজে লাগিয়ে ক্ষুদ্র চা চাষীরা সময়মত সঠিক পদ্ধতিতে গুণগতমানের পাতা চয়ন, প্রুনিং ও পোকামাকড় দমন করতে সক্ষম হবে। ২০২০-১১-০৪
২৪ উত্তরবঙ্গের চা শিল্পের সম্ভাবনা, সমস্যা ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা বিষয়ে চায়ের সাথে সম্পৃক্ত স্টেক হোল্ডারদের সাথে আজ (২০ অক্টোবর ২০২০ খ্রি. তারিখে) জেলা প্রশাসক, পঞ্চগড়ের সম্মেলন কক্ষে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। ২০২০-১০-২০
২৫ ময়মনসিংহের গারো পাহাড়ের পাদদেশে চা চাষ সম্প্রসারণে ক্ষুদ্র চাষিদের উদ্বুদ্ধকরণ ও কারিগরি সহযোগিতা প্রদানের লক্ষ্যে বাংলাদেশ চা বোর্ডের আওতাধীন বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বিটিআরআই) পরিচালক ড. মোহাম্মদ আলী সহ ৫ সদস্যের একটি বিশেষজ্ঞ টিম গত ১৭-১৯ অক্টোবর ২০২০ খ্রি. তারিখে পর্যন্ত বৃহত্তর ময়মনসিংহের শেরপুর জেলার শ্রীবর্দী, ঝিনাইগাতি, নকলা ও নালিতাবাড়ি এবং ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা উপজেলায় সৃজিত ক্ষুদ্রায়তন চা বাগানসমূহ সরেজমিনে পরিদর্শন করেন ও চাষিদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করেন ২০২০-১০-১৯
২৬ বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মোঃ জহিরুল ইসলাম, এনডিসি, পিএসসি আজ (১৯ অক্টোবর ২০২০ খ্রি. তারিখে) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রনালয়াধীন বাংলাদেশ চা বোর্ড এর আঞ্চলিক কার্যালয়, পঞ্চগড়ে “বঙ্গবন্ধু চা গ্যালারি” উদ্বোধন করেন। ২০২০-১০-১৯
২৭ বাংলাদেশ চা বোর্ড পরিচালিত ‘Eradication of Rural Poverty by Extension of Small Holding Tea Cultivation in Lalmonirhat’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় আজ ১২.১০.২০২০ খ্রিস্টাব্দ তারিখে লালমনিরহাট জেলার পাটগ্রাম উপজেলায় ‘চা চাষে উৎসাহ প্রদান’ শীর্ষক এক উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ২০২০-১০-১২
২৮ ‘পঞ্চগড়ে তৃতীয় নিলাম কেন্দ্র করার চিন্তা চা বোর্ডের’ শীর্ষক প্রতিবেদন (দৈনিক ইত্তেফাক, ০২.১০.২০২০) ২০২০-১০-০২
২৯ বাংলাদেশ চা বোর্ড পরিচালিত ‘Eradication of Rural Poverty by Extension of Small Holding Tea Cultivation in Lalmonirhat’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় গত ২৬.০৯.২০২০ খ্রিস্টাব্দ তারিখে লালমনিরহাট জেলার আদিতমারী উপজেলায় ‘চা চাষে উৎসাহ প্রদান’ শীর্ষক এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। ২০২০-০৯-২৬
৩০ ‘চা শিল্পের নতুন সম্ভাবনা পার্বত্য চট্টগ্রাম’ শিরোনামে চ্যানেল ২৪ এ প্রচারিত সংবাদ (২৫.০৯.২০২০খ্রি.) ২০২০-০৯-২৫
৩১ ৪ জুন ‘জাতীয় চা দিবস’ ঘোষণার অনুমোদন দেয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশ চা বোর্ডের পক্ষ থেকে আন্তরিক ধন্যবাদ, কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন ও অভিনন্দন। ২০২০-০৭-২৭
৩২ ৪ জুন ‘জাতীয় চা দিবস’ ঘোষণা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ৪ জুন ১৯৫৭ খ্রি. হতে ২৩ অক্টোবর ১৯৫৮ খ্রি. পর্যন্ত প্রথম বাঙালি হিসেবে চা বোর্ডের চেয়ারম্যান পদে দায়িত্ব পালন কালে ঢাকার মতিঝিলে জমি ক্রয় করে চা বোর্ডের প্রধান কার্যালয় স্থাপনকরণ, চা শিল্পের সম্প্রসারণ, গবেষণা ও শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে অবিস্মরণীয় অবদান রাখেন। এছাড়াও স্বাধীনতা পরবর্তী যুদ্ধবিধ্বস্ত চা বাগান পুনর্গঠন, বাগান মালিকদের ভর্তুকি প্রদান এবং টি রিসার্স স্টেশনকে পূর্ণাঙ্গ চা গবেষণা ইনস্টিটিউটে (বিটিআরআই) উন্নীতকরণের কাজটিও তিনি সম্পন্ন করেন। তাঁর এ যুগান্তকারী অবদানকে স্মরণীয় করে রাখার জন্য আজ ২০ জুলাই ২০২০ খ্রি. তারিখ মন্ত্রিসভার বৈঠকে চা বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে বঙ্গবন্ধুর দায়িত্ব গ্রহণের তারিখ ৪ জুনকে প্রতি বছর “জাতীয় চা দিবস” হিসেবে পালনের অনুমোদন দেয়া হয়। ২০২০-০৭-২০
৩৩ শ্রীলংকা টি রিসার্চ ইনস্টিটিউট (TRI’s) এর আমন্ত্রণে বাংলাদেশ চা বোর্ড এর সদস্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) জনাব মো: গোলাম মাওলা, প্রকল্প উন্নয়ন ইউনিট (পিডিইউ) এর পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) ড. এ কে এম রফিকুল হক, বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউট (বিটিআরআই) বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা জনাব মো: রিয়াদ আরেফিন এবং জনাব মো: আরিফুর রহমান ভূঁইয়া গত ১০-১৪ জুন ২০১৯খ্রি: তারিখ পর্যন্ত ০৫ (পাঁচ) দিনের একটি Exposure Visit এ শ্রীলংকা সফর করেন। বাংলাদেশের চায়ের উৎপাদন বৃদ্ধিতে কিভাবে ক্ষুদ্রায়তন চা আবাদ ব্যাপকভাবে সম্প্রসারণ করা যায় এবং এ ক্ষেত্রে শ্রীলংকার অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগানোর জন্য সরেজমিনে পরিদর্শন করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ চা বোর্ডের চার সদস্যের এ টিম উক্ত Exposure Visit এ শ্রীলংকা টি রিসার্চ ইনস্টিটিউট, শ্রীলংকা টি বোর্ড, চা নিলাম কেন্দ্র, ব্রোকার হাউজ, চা প্রক্রিয়াকরণ পদ্ধতি এবং ক্ষুদ্রায়তন চা বাগান পরিদর্শন করেন। এ Exposure Visit এর মাধ্যমে বাংলাদেশে ক্ষুদ্রায়তন চা আবাদ সম্প্রসারণের মাধ্যমে চা’র উৎপাদন বৃদ্ধি এবং চায়ের উপর গবেষণার ক্ষেত্রে দু’দেশের মধ্যে সহযোগিতা আরও সম্প্রসারিত হবে। ২০১৯-০৭-০১
৩৪ বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (APA) এবং জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল(NIS) এর ত্রৈমাসিক ( জুলাই-সেপ্টেম্বর ,২০১৭) অগ্রগতি এবং উদ্ভাবনী উদ্যোগ ও Small Improvement Project(SIP) বাস্তবায়ন সংক্রান্ত বার্ষিক প্রতবেদন ২০১৭-১০-১২
৩৫ গত ১২-০৬-২০১৭ তারিখে অনুষ্ঠিত ৮৪তম বোর্ড সভায় চা এর খুচরা-পাইকারী লাইসেন্স ফি ২,৫০০ টাকা ও নবায়ন ফি ১,০০০ টাকা, বিডার লাইসেন্স ফি ১০,০০০ টাকা ও নবায়ন ফি ৫,০০০ টাকা , ব্লেন্ডার লাইসেন্স ফি ২০,০০০ টাকা ও নবায়ন ফি ১০,০০০ টাকা এবং ব্রোকার লাইসেন্স ফি ২৫,০০০ টাকা ও নবায়ন ফি ১২,৫০০ টাকা পুনঃনির্ধারণ করা হয়েছে। ২০১৭-০৬-১৪
৩৬ শিলাবৃষ্টি মোকাবেলায় চা চাষীদের করণীয় ২০১৭-০৫-১১
৩৭ ২০১৫-২০১৭ চট্টগ্রাম নিলাম কেন্দ্রে বিক্রিত চা এর পরিমাণ ও গড় মূল্য ২০১৭-০৫-০৭
৩৮ বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো: সাফিনুল ইসলাম, এনডিসি, পিএসসি সম্প্রতি পশ্চিম ষোলশহরস্থ ৪৯, কুঞ্জছায়া, শান্তিনগরে অবস্থিত বাংলাদেশ চা বোর্ড আবাসিক এলাকা পরিদর্শন করেন। চা বোর্ডের সদস্য (অর্থ ও বাণিজ্য), সচিব, উপসচিব সহ সকল শ্রেণীর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ এ সময় উপস্থিত ছিলেন। ২০১৬-১২-২৯
৩৯ জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল সর্ম্পকে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পরিচিতকরণ ও উৎসাহিতকরণের লক্ষ্যে ২৭/১২/২০১৬ তারিখে বাংলাদেশ চা বোর্ডের সেমিনার কক্ষে সদস্য (অর্থ ও বাণিজ্য) মহোদয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় ৪র্থ শ্রেণীর তিনজন কর্মচারীকে তাদের ভালো কাজের জন্য পুরষ্কৃত করা হয় ও অন্যান্যদেরও অনুপ্রাণিত করা হয়। ২০১৬-১২-১৯
৪০ বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো: সাফিনুল ইসলাম, এনডিসি, পিএসসি গত ০১ নভেম্বর ২০১৬ লালমনিরহাটের “Eradication of Rural Poverty by Extension of Small Holding Tea Cultivation in Lalmonirhat” শীর্ষক প্রকল্প এলাকা; ০২ নভেম্বর ২০১৬ পঞ্চগড় এবং ঠাকুরগাঁওয়ের “Extension of Small Holding Tea Cultivation in Northern Bangladesh” শীর্ষক প্রকল্প এলাকা এবং ০৩ নভেম্বর ২০১৬ নীলফামারীর ““Extension of Small Holding Tea Cultivation in Northern Bangladesh” শীর্ষক প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেন। ২০১৬-১১-০৬

সর্বমোট তথ্য: ৪৪



Share with :

Facebook Facebook